‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেয়া হবে না’ - দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানায় হিন্দু ও মুসিলম নেতাদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ফতুল্লা মডেল থানায় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেয়া হবে না। নারায়ণগঞ্জে ১৩৯ বছর যাবত পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের মাসদাইরে পাশাপাশি কবরস্থান, শ্মশান ও মেনন এবং মসজিদ রয়েছে, যা নারায়ণগঞ্জের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উৎকৃষ্ট উদাহরণ। এখানে যারা হিন্দু ধর্মাবলম্বী ও মুসলিম ধর্মাবলম্বী রয়েছেন, তাদের পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ, ভালোবাসা-আস্থা এবং বিশ্বাস একে অপরের প্রতি চলমান রয়েছে। শান্তি প্রিয় এই নারায়ণগঞ্জে ধর্মের নামে কাউকে উচ্ছৃঙ্খলতা করতে দেয়া হবে না।

তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জেলা। যারা অপরাধ করবে তারা অপরাধী।

ধর্ম দিয়ে তাদের পরিচিতি দেয়া ঠিক নয়।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমের নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-সার্কেল) নাজমুল হাসানের তদারকিতে অফিসার ইনচার্জ রকিবুজ্জামানের সভাপতিত্বে যুগান্তরের ফতুল্লা প্রতিনিধি আলামিন প্রধানের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন- নারায়ণগঞ্জ জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব রঞ্জিত মণ্ডল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর হেফাজত ইসলামের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হারুন অর রশিদ, সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহসভাপতি রঞ্জিত মোদক, ফতুল্লা থানা ওলামা কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মাওলানা ফয়েজ উল্লাহ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিবু দাস, মাওলানা উজিউল্লাহ, মাওলানা রেজাউলক করিম, বীরেন্দ্র মণ্ডল, ফতুল্লা কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক ও থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোস্তফা কামাল, ফতুল্লা রিপোর্টার্স

ইউনিটের সভাপতি নুরুল ইসলাম, ফতুল্লা মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি আনিসুজ্জামান অনু, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আহমেদ বাধন, ফতুল্লা প্রেস ক্লাবে সাংগঠনিক সম্পাদক নিয়াজ মোহাম্মদ মাসুম, ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন, পুলিশ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম, পরিদর্শক তরিকুল ইসলাম, এসআই হারেজ।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানায় হিন্দু ও মুসিলম নেতাদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ফতুল্লা মডেল থানায় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেয়া হবে না। নারায়ণগঞ্জে ১৩৯ বছর যাবত পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের মাসদাইরে পাশাপাশি কবরস্থান, শ্মশান ও মেনন এবং মসজিদ রয়েছে, যা নারায়ণগঞ্জের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উৎকৃষ্ট উদাহরণ। এখানে যারা হিন্দু ধর্মাবলম্বী ও মুসলিম ধর্মাবলম্বী রয়েছেন, তাদের পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ, ভালোবাসা-আস্থা এবং বিশ্বাস একে অপরের প্রতি চলমান রয়েছে। শান্তি প্রিয় এই নারায়ণগঞ্জে ধর্মের নামে কাউকে উচ্ছৃঙ্খলতা করতে দেয়া হবে না।

তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জেলা। যারা অপরাধ করবে তারা অপরাধী।

ধর্ম দিয়ে তাদের পরিচিতি দেয়া ঠিক নয়।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমের নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-সার্কেল) নাজমুল হাসানের তদারকিতে অফিসার ইনচার্জ রকিবুজ্জামানের সভাপতিত্বে যুগান্তরের ফতুল্লা প্রতিনিধি আলামিন প্রধানের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন- নারায়ণগঞ্জ জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব রঞ্জিত মণ্ডল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর হেফাজত ইসলামের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হারুন অর রশিদ, সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহসভাপতি রঞ্জিত মোদক, ফতুল্লা থানা ওলামা কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মাওলানা ফয়েজ উল্লাহ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিবু দাস, মাওলানা উজিউল্লাহ, মাওলানা রেজাউলক করিম, বীরেন্দ্র মণ্ডল, ফতুল্লা কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক ও থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোস্তফা কামাল, ফতুল্লা রিপোর্টার্স

ইউনিটের সভাপতি নুরুল ইসলাম, ফতুল্লা মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি আনিসুজ্জামান অনু, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আহমেদ বাধন, ফতুল্লা প্রেস ক্লাবে সাংগঠনিক সম্পাদক নিয়াজ মোহাম্মদ মাসুম, ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন, পুলিশ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম, পরিদর্শক তরিকুল ইসলাম, এসআই হারেজ।

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেয়া হবে না’

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৯ অক্টোবর, ২০২১ | ১০:২৩ 30 ভিউ

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানায় হিন্দু ও মুসিলম নেতাদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ফতুল্লা মডেল থানায় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেয়া হবে না। নারায়ণগঞ্জে ১৩৯ বছর যাবত পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের মাসদাইরে পাশাপাশি কবরস্থান, শ্মশান ও মেনন এবং মসজিদ রয়েছে, যা নারায়ণগঞ্জের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উৎকৃষ্ট উদাহরণ। এখানে যারা হিন্দু ধর্মাবলম্বী ও মুসলিম ধর্মাবলম্বী রয়েছেন, তাদের পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ, ভালোবাসা-আস্থা এবং বিশ্বাস একে অপরের প্রতি চলমান রয়েছে। শান্তি প্রিয় এই নারায়ণগঞ্জে ধর্মের নামে কাউকে উচ্ছৃঙ্খলতা করতে দেয়া হবে না। তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জেলা। যারা অপরাধ করবে তারা অপরাধী।

ধর্ম দিয়ে তাদের পরিচিতি দেয়া ঠিক নয়। নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমের নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-সার্কেল) নাজমুল হাসানের তদারকিতে অফিসার ইনচার্জ রকিবুজ্জামানের সভাপতিত্বে যুগান্তরের ফতুল্লা প্রতিনিধি আলামিন প্রধানের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন- নারায়ণগঞ্জ জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব রঞ্জিত মণ্ডল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর হেফাজত ইসলামের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হারুন অর রশিদ, সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহসভাপতি রঞ্জিত মোদক, ফতুল্লা থানা ওলামা কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মাওলানা ফয়েজ উল্লাহ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিবু দাস, মাওলানা উজিউল্লাহ, মাওলানা রেজাউলক করিম, বীরেন্দ্র মণ্ডল, ফতুল্লা কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক ও থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোস্তফা কামাল, ফতুল্লা রিপোর্টার্স

ইউনিটের সভাপতি নুরুল ইসলাম, ফতুল্লা মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি আনিসুজ্জামান অনু, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আহমেদ বাধন, ফতুল্লা প্রেস ক্লাবে সাংগঠনিক সম্পাদক নিয়াজ মোহাম্মদ মাসুম, ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন, পুলিশ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম, পরিদর্শক তরিকুল ইসলাম, এসআই হারেজ।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ: