গোটা বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটাতে চান ইলন মাস্ক - দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ

বিশ্বের জনপ্রিয় ইলেকট্রিক কার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা ও মহাকাশ যান নির্মাতা কোম্পানি স্পেসএক্সের প্রধান ইলন মাস্ক গোটা বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটানোর দায় নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। মাস্কের মতো অতি ধনীদের সম্পদের সামান্য অংশ দান করলেই মিটবে বিশ্বের খাদ্য সংকট। এমন দাবি করে তাদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছিলেন জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) পরিচালক ডেভিড বিজলি।

এবার বিজলির সে দাবির সত্যতা প্রমাণের জন্য চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন খোদ টেসলা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইলন মাস্ক। চ্যালেঞ্জে উতরে গেলে তাৎক্ষণিক শেয়ার বিক্রি করে ওই পরিমাণ অর্থ জোগাড় করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন টুইটারে। টুইটে ৬০০ কোটি ডলারে কীভাবে বিশ্বের খাদ্য সংকট মিটবে, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কাছে

তার সঠিক ব্যাখ্যা চেয়েছেন মাস্ক। ব্যাখ্যা বাস্তবসম্মত হলো তাৎক্ষণিক টেসলার ৬০০ কোটি ডলারের শেয়ার বিক্রি করে ওই অর্থের ব্যবস্থা করবেন বলে জানিয়েছেন এ শতকোটিপতি। টুইটারে ইলন মাস্ক লেখেছেন, ‘এ টুইটার থ্রেডে ডব্লিউএফপি যদি ব্যাখ্যা করতে পারে ৬০০ কোটি ডলার ঠিক কীভাবে বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটাবে, তবে আমি এখনই টেসলার শেয়ার বিক্রি করে ওই অর্থ দিয়ে দেব।’

পরের আরেক টুইটে মাস্ক বলেছেন, হিসাবে স্বচ্ছতা বজায় রাখতে হবে, যেন সবাই তা দেখতে পায়। ইলন মাস্কের বর্তমান নিট সম্পদ দেখাচ্ছে ৩১ হাজার ১০০ কোটি ডলার। বর্তমান দরে সে সম্পদের ২ শতাংশ বিক্রি করলে ৬০০ কোটি ডলারের ঢের বেশি অর্থ হাতে চলে আসবে তার। এদিকে

ডব্লিউএফপি পরিচালকের চ্যালেঞ্জে আমাজনের সহপ্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোসের নাম উল্লেখ করা হলেও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য জানাননি তিনি।

বিশ্বের জনপ্রিয় ইলেকট্রিক কার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা ও মহাকাশ যান নির্মাতা কোম্পানি স্পেসএক্সের প্রধান ইলন মাস্ক গোটা বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটানোর দায় নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। মাস্কের মতো অতি ধনীদের সম্পদের সামান্য অংশ দান করলেই মিটবে বিশ্বের খাদ্য সংকট। এমন দাবি করে তাদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছিলেন জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) পরিচালক ডেভিড বিজলি।

এবার বিজলির সে দাবির সত্যতা প্রমাণের জন্য চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন খোদ টেসলা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইলন মাস্ক। চ্যালেঞ্জে উতরে গেলে তাৎক্ষণিক শেয়ার বিক্রি করে ওই পরিমাণ অর্থ জোগাড় করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন টুইটারে। টুইটে ৬০০ কোটি ডলারে কীভাবে বিশ্বের খাদ্য সংকট মিটবে, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কাছে

তার সঠিক ব্যাখ্যা চেয়েছেন মাস্ক। ব্যাখ্যা বাস্তবসম্মত হলো তাৎক্ষণিক টেসলার ৬০০ কোটি ডলারের শেয়ার বিক্রি করে ওই অর্থের ব্যবস্থা করবেন বলে জানিয়েছেন এ শতকোটিপতি। টুইটারে ইলন মাস্ক লেখেছেন, ‘এ টুইটার থ্রেডে ডব্লিউএফপি যদি ব্যাখ্যা করতে পারে ৬০০ কোটি ডলার ঠিক কীভাবে বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটাবে, তবে আমি এখনই টেসলার শেয়ার বিক্রি করে ওই অর্থ দিয়ে দেব।’

পরের আরেক টুইটে মাস্ক বলেছেন, হিসাবে স্বচ্ছতা বজায় রাখতে হবে, যেন সবাই তা দেখতে পায়। ইলন মাস্কের বর্তমান নিট সম্পদ দেখাচ্ছে ৩১ হাজার ১০০ কোটি ডলার। বর্তমান দরে সে সম্পদের ২ শতাংশ বিক্রি করলে ৬০০ কোটি ডলারের ঢের বেশি অর্থ হাতে চলে আসবে তার। এদিকে

ডব্লিউএফপি পরিচালকের চ্যালেঞ্জে আমাজনের সহপ্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোসের নাম উল্লেখ করা হলেও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য জানাননি তিনি।

নিউজ ডেক্স
আপডেটঃ ৪ নভেম্বর, ২০২১
২:২৩ অপরাহ্ণ
21 ভিউ

আরও খবর

গোটা বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটাতে চান ইলন মাস্ক

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৪ নভেম্বর, ২০২১ | ২:২৩ 21 ভিউ

বিশ্বের জনপ্রিয় ইলেকট্রিক কার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা ও মহাকাশ যান নির্মাতা কোম্পানি স্পেসএক্সের প্রধান ইলন মাস্ক গোটা বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটানোর দায় নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। মাস্কের মতো অতি ধনীদের সম্পদের সামান্য অংশ দান করলেই মিটবে বিশ্বের খাদ্য সংকট। এমন দাবি করে তাদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছিলেন জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) পরিচালক ডেভিড বিজলি। এবার বিজলির সে দাবির সত্যতা প্রমাণের জন্য চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন খোদ টেসলা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইলন মাস্ক। চ্যালেঞ্জে উতরে গেলে তাৎক্ষণিক শেয়ার বিক্রি করে ওই পরিমাণ অর্থ জোগাড় করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন টুইটারে। টুইটে ৬০০ কোটি ডলারে কীভাবে বিশ্বের খাদ্য সংকট মিটবে, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কাছে

তার সঠিক ব্যাখ্যা চেয়েছেন মাস্ক। ব্যাখ্যা বাস্তবসম্মত হলো তাৎক্ষণিক টেসলার ৬০০ কোটি ডলারের শেয়ার বিক্রি করে ওই অর্থের ব্যবস্থা করবেন বলে জানিয়েছেন এ শতকোটিপতি। টুইটারে ইলন মাস্ক লেখেছেন, ‘এ টুইটার থ্রেডে ডব্লিউএফপি যদি ব্যাখ্যা করতে পারে ৬০০ কোটি ডলার ঠিক কীভাবে বিশ্বের খাদ্য সংকট মেটাবে, তবে আমি এখনই টেসলার শেয়ার বিক্রি করে ওই অর্থ দিয়ে দেব।’ পরের আরেক টুইটে মাস্ক বলেছেন, হিসাবে স্বচ্ছতা বজায় রাখতে হবে, যেন সবাই তা দেখতে পায়। ইলন মাস্কের বর্তমান নিট সম্পদ দেখাচ্ছে ৩১ হাজার ১০০ কোটি ডলার। বর্তমান দরে সে সম্পদের ২ শতাংশ বিক্রি করলে ৬০০ কোটি ডলারের ঢের বেশি অর্থ হাতে চলে আসবে তার। এদিকে

ডব্লিউএফপি পরিচালকের চ্যালেঞ্জে আমাজনের সহপ্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোসের নাম উল্লেখ করা হলেও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য জানাননি তিনি।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ: